শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪, ৪ শ্রাবণ, ১৪৩১

নারায়ণগঞ্জে যুবলীগ নেতার গাড়িতে আগুন

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে হানিফ মিয়া নামে এক যুবলীগের নেতার প্রাইভেটকার ভাঙচুর করে আগুন দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (১৩ এপ্রিল) রাতে রূপগঞ্জের দাউদপুর ইউনিয়নের বইলদা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

যুবলীগ নেতা হানিফ মিয়া বলেন- দাউদপুর ইউনিয়নের শিমুলিয়া, দাউদপুর, বইলদা, দুয়ারা, কালনি, কুলাদি, খইসাইর, কামতা, খাস দাউদপুর, বড় আমদিয়া, জিন্দা, বইলদা, ভাটপাড়া, পুটিনাসহ বিভিন্ন এলাকায় জমি না কিনে বালু ফেলে দখল করা হচ্ছে। আর বালু ভরাট ও দখলে নেতৃত্ব দিচ্ছেন দাউদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর মাস্টার। এতে করে দাউদপুর ইউনিয়নের মানুষ ক্ষুব্ধ। তিনি আমাকে বিভিন্ন সময়ে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছিলেন।

তিনি আরও বলেন, রাতে আমার ভাতিজা রাব্বি মিয়া আমার ব্যবহৃত প্রাইভেটকার যোগে বইলদা এলাকায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে যাচ্ছিল। এসময় পূর্ব পরিকল্পিতভাবে নুরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর মাস্টারের নেতৃত্বে খোকন, জালাল, বাবুল, সেকান্দর, শাহেদ, সারোয়ার, মাসুম, শুভ ও সজলসহ ২৫-৩০ জনের একটি গ্রুপ অস্ত্র সজ্জিত হয়ে প্রাইভেট কারটি গতিরোধ করে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর শুরু করে।

এক পর্যায়ে ভাতিজা রাব্বি মিয়ার মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে গাড়িতে থাকা নগদ দুই লাখ টাকাসহ মূল্যবান কাগজপত্র লুটে নেয়। সেই সঙ্গে হামলাকারীরা গাড়িতে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে হামলাকারীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে চলে যাওয়ার পর এলাকার মানুষ এগিয়ে এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। ততক্ষণে পুরো গাড়িটি আগুনে পুড়ে যায়।

তবে এ বিষয়ে কথা বলার জন্য দাউদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর মাস্টারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিপক চন্দ্র সাহা বলেন, একটি প্রাইভেট কারে আগুন দেওয়ার ঘটনার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Join Manab Kallyan