বুধবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২৪, ৪ বৈশাখ, ১৪৩১
প্রচ্ছদ লাইফস্টাইল নিজের প্রতি যত্নশীল হোন

নিজের প্রতি যত্নশীল হোন

ভালোবাসা একটি গাছের মতো। শুধু প্রয়োজন একটু উর্বর মাটি আর তাতে পর্যাপ্ত পানি। সাথে যদি যুক্ত হয় একটু মায়ামমতা তবে সেই গাছ যেমন দ্রুত বাড়ে তেমনি ফল দেয়, ফুল দেয় আপনার মনের মতো। তাই আপনি যখন কাউকে তার পাওনা পর্যাপ্ত ভালোবাসা দেবেন তখনই কেবল তার মনের বাগানে আপনার দেওয়া বীজ থেকে চারা গজাবে। আর এসব কাজের জন্য চাই নিজের ভালো থাকা। আর নিজের ভালো থাকার অন্তরালে থাকে নিজেকে ভালোবাসা। নিজেকে যখন কেউ ভালোবাসে না, দেখে রাখে না, পর্যাপ্ত যত্ন নেয় না তখন আপনার শরীর আপনার সাথে মনোমালিন্য করে থাকে। আর তাতে দেখা দেয় নিজের প্রতি ভালোবাসাহীনতা। জীবনে উত্থান পতন এলেও আমরা সেই আমাদেরই দোষ দেই। অথচ এই আমাদের বাইরের আমি ভেতরের আমিটাকে কত না যত্ন করে আকড়ে রেখেছে। বাইরের ঝড়ে ভিতর তছনছ হয়ে গেলেও বাইরের আবরণে থাকা শক্ত এই মানব যন্ত্রটিকে রেখেছে সচল। তা কেবলই সম্ভব হয় আপনার নিজের প্রতি নিজের ভালোবাসার জন্য। খুব আশ্চর্য বিষয় হচ্ছে আপনি আপনার নিজেকে প্রচণ্ড ভালোবাসেন বিধায়ই আপনার প্রতি একটু বেশি যত্ন রাখতে আরেকটি মানুষ খোঁজেন। সবকিছুর গোড়াতেই থাকে এই ভালোবাসার বীজ। তাই সবার আগে ভালো রাখতে হয় নিজেকে।

দ্রুত নয়, ধীরে
কোনো কাজই দ্রুত করলে তার ফল ভালো হয় না। তাই জীবনে করা যেকোনো কাজ ধীরে সুস্থে করুন। যখন কোন কাজ আপনি ধীরে করবেন তার ভালো একটি ফল আপনি দীর্ঘ সময় ধরে পাবেন। তাই নিজের প্রতি ভালোবাসাটাও আস্তে ধীরেই গড়ে তুলুন। আপনার পছন্দের কোনো কাজ ফেলে রাখবেন না। যত দ্রুত পারুন করে ফেলুন। দেখবেন নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাসের সিঁড়ি দ্রুত উপরের দিকে উঠে যাচ্ছে।

নিজের কাছে পরাজিত
নিজের কাছে নিজে যত পারুন পরাজিত হোন। নিজের গণ্ডিকে পেরিয়ে আরো বাইরে যাওয়ার চেষ্টা করুন। আপনি যখন আপনাকে ছাপিয়ে সামনে যেতে পারবেন কেবল তখনই পারবেন নিজেকে সত্যিকার অর্থে ভালবাসতে। তখনই কেবল আপনার নিজের প্রতি আপনার আত্মবিশ্বাস পুনরায় জন্ম নেবে আর আপনি পারবেন হাসি মুখে নিজেকে ভালোবেসে প্রাণবন্ত থাকতে।

 

নিজের প্রতি আস্থা
না বলা কোনো কথা নিজের ভেতর চেপে রাখবেন না। এতে আপনার মনের সাথে আপনার তীব্র সমস্যা তৈরি হয়। আর যার ফলে আপনি ভুগেন সিদ্ধান্তহীনতায়। তাই নিজের প্রতি নিজের বিশ্বাসের প্রতি আটল থাকুন। আর মনে এমন কোনো কথা এলে তা লিখে ফেলুন। তা না হলে তা এমন কারো সাথে শেয়ার করুন যে আপনার বিশ্বস্ত। আর এতে আপনার নিজের কথার প্রতি আস্থা ফিরে আসবে। আপনি এটা মানতে শুরু করবেন যে আপনার সিদ্ধান্ত নেওয়াটা ভুল হয়নি। আর এতে নিজের প্রতি নিজের ভালোবাসা বাড়ায়।

নিজেকে উপহার দিন
কেউ আপনাকে কোনো উপলক্ষে উপহার দিলো কি না তা গুরুত্বপূর্ণ না। আপনি আপনাকে নিজে কী দিচ্ছেন তা বড় গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তাই যেকোনো উপলক্ষ্যে নিজেকে নিজের পক্ষ থেকে উপহার দিন। তা হতে পারে আপনার পছন্দের আইসক্রিম কিংবা চকলেট। এতে করে আপনি আপনার নিজের সঙ্গ যেমন উপলব্ধি করতে পারবেন তেমনই নিজেকে উজাড় করে ভালোবাসতে পারবেন।

লাইফস্টাইল মডেল: মেহেরুন নেছা

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

Join Manab Kallyan

সর্বোচ্চ পঠিত