শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪, ৪ শ্রাবণ, ১৪৩১

আতঙ্কের নাম রাসেলস ভাইপার

সম্প্রতি বিষাক্ত সাপ রাসেলস ভাইপারকে কেন্দ্র করে সারাদেশে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। কেউ কেউ আবার বলছেন, এসব নাকি গুজব। কেউ আবার এই সাপ মারতে পারলে পুরস্কারও ঘোষণা করেছেন। সব মিলিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

মাহতাব হোসেন মজার ছলে লিখেছেন, ‘রাসেল ভাইপার নিয়ে এত বেশি আতঙ্ক ছড়িয়েছে যে, গত রাতে অনেকেই সাপটাকে স্বপ্নে দেখেছে।’

সামিনা বিপাশা লিখেছেন, ‘একবার পদ্মার চরে আমাদের এক ফটোগ্রাফার ছবি তুলে বাসায় এসে ফাইল ওপেন করার পর দেখতে পায় পাখির পায়ের কাছে রাসেলস ভাইপার কিন্তু ছবি তোলার সময় খেয়াল করেনি। এমনকি সাপও তাকে আক্রমণ করেনি।’

সপঞ্জয় চৌধুরী লিখেছেন, ‘রাসেলস ভাইপার নিয়ে কয়েকটি ভিডিও দেখলাম। কোনো ভিডিওতেই সে তেড়ে এসে আক্রমণ করছে না বরং পালিয়ে যাচ্ছে। একটা ফেক ভাইভ তৈরি করা হচ্ছে। বেচারা।’

নাসির উদ্দিন ফকির লিটন লিখেছেন, ‘দেশজুড়ে বিষধর বিভিন্ন সাপসহ রাসেলস ভাইপার আতঙ্ক বিরাজ করছে। সকলেই সচেতনতা অবলম্বন করি। কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে অ্যান্টিভেনাম ইনজেকশন আপনার নিকটতম জেলা হাসপাতাল অথবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে খোঁজ করুন।’

সৈয়দ মেহেদী হাসান অবশ্য লিখেছেন ভিন্ন কথা। তিনি আহ্বান জানিয়েছেন সবার কাছে, ‘সাপ হত্যা বন্ধ করুন।’

রাসেল ইব্রাহিম লিখেছেন, ‘বিব্রতকর পরিস্থিতিতে আছি। রাসেলস ভাইপারের নাম পরিবর্তন করা উচিত কিংবা ‘চন্দ্রবোড়া’ নামে ডাকা উচিত।’

সরদার মুহিব লিখেছেন, ‘নিউজফিড দেখতেছি না কি ডিসকভারি চ্যানেল বুঝতেছি না। পুরাটা নিউজ ফিড জুড়ে ছাগল আর সাপ। যামু কই!’

Join Manab Kallyan