রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪, ৩০ আষাঢ়, ১৪৩১

প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান

বাংলাদেশে সাংবাদিকরা স্বাধীনভাবে কাজ করছেন

বাংলাদেশে সাংবাদিকরা স্বাধীনভাবে কাজ করছেন বলে দাবি করেছেন প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. নিজামুল হক নাসিম। শুক্রবার (৩ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস’ উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এ দাবি করেন।

প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বলেন, স্বাধীনভাবেই দেশের মানুষের কাছে সব খবর পৌঁছে দিচ্ছেন সাংবাদিকরা। এর মাধ্যমে গণমাধ্যমের যে উন্নয়ন সেটা তারা পালন করছেন। দুই একটা ব্যতিক্রম থাকতেই পারে।

তিনি আরও বলেন, সাংবাদিকদের সত্য বলতে হবে, লিখতে হবে। তবে সেই সত্য যেন দেশপ্রেমের সত্য হয়। সেই সত্যের মাধ্যমে দেশের যেন কোনো ক্ষতি না হয়, এটা আমাদের মনে রাখতে হবে। আপনি যা দেখবেন তা লিখতে পারেন না। যদি না দেখা যায়, তা লিখলে সমাজের ক্ষতি হবে, দেশের ক্ষতি হবে। কিন্তু স্বাধীনভাবে লেখার যে অধিকার সেই অধিকার সাংবাদিকদের থাকতে হবে।

প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বলেন, সাংবাদিকরাই সিদ্ধান্ত নেবেন সেটি কীভাবে তারা প্রকাশ করবেন। আর প্রকাশের সময় যদি দেশের ক্ষতিজনক কিছু প্রকাশ হয়, এজন্য তো আইন রয়েছে। কিন্তু মানুষের অধিকারে হাত দেওয়া, মানুষের কথা বলতে পারার অধিকারকে বন্ধ করা, এটি কখনোই গ্রহণযোগ্য নয় এবং হতে পারে না।

সাংবাদিকরা সরকার কর্তৃক নিষ্পেষিত- এমন অভিযোগের বিষয়ে একমত নন বলে জানান তিনি। বলেন, সাংবাদিকরা যদি কোনো ভুল করেন, সেখানে বিচার আছে, বিচার হতে পারে। বিচারে দোষী হলে শাস্তি হবে, সেটা ভিন্ন কথা। আর আমাদের আইনে যদি বলে জামিন দেওয়া যাবে না। এটা কোনো জামিন দেওয়া যাবে না কথা নয়, এটা হলো জজ সাহেবের অধিকার। তিনি জামিন দিতেও পারেন, নাও পারেন। আইনের এই অথোরিটির ব্যাপার জানতে হবে, বুঝতে হবে।

নিজামুল হক নাসিম বলেন, আমরা চাই, সাংবাদিক, সম্পাদক এবং মালিক- এই তিনটা পক্ষ মিলেই এ দেশের সাংবাদিকতার উন্নয়নে কাজ করবে। সাংবাদিকরা যেন ডেভেলপ করতে পারেন, দেশের, দশের, মানুষের কাজ করতে পারেন। এদিকে আমাদের লক্ষ্য রাখতে পারে। প্রেস কাউন্সিলের আইনে যতটুকু ক্ষমতা আমাকে দেওয়া আছে, এই ক্ষমতা যদি সাংবাদিকদের উন্নয়নে প্রয়োগ করতে হয়, তাহলে এটি প্রয়োগ করতে আমরা পিছপা হবো না।

আলোচনা সভায় জাতীয় ইউনেস্কো ক্লাব অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অধ্যাপক সৈয়দা নিলুফার নাসরিন, সংগঠনটির মহাসচিব মো. মাহবুব উদ্দীন চৌধুরী, সাংবাদিক মঞ্জুরুল আহসান বুলবুলসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

Join Manab Kallyan