শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪, ৪ শ্রাবণ, ১৪৩১

রোহিঙ্গা তরুণকে জন্মনিবন্ধন সনদ, ইউপি সচিব কারাগারে

কুমিল্লায় রোহিঙ্গা তরুণকে জন্মনিবন্ধন সনদ দেওয়ার অভিযোগে করা মামলায় ইসমাইল হোসেন (৩৫) নামের এক ইউপি সচিবকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শুক্রবার (২১ জুন) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গ্রেফতার ইসমাইল হোসেন মুরাদনগর সদর ইউনিয়ন পরিষদে সচিব পদে কর্মরত। তিনি কুমিল্লা আদর্শ উপজেলার গুনানন্দি গ্রামের বাচ্চু মিয়ার ছেলে। কুমিল্লা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজেশ বড়ুয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

পুলিশ জানায়, চলতি বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে এসে ইয়াছিন (১৯) নামের এক রোহিঙ্গা তরুণ আটক হন। তিনি মুরাদনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের ঘোড়াশাল গ্রামের বাসিন্দা পরিচয়ে জন্মনিবন্ধন বানিয়ে পাসপোর্ট করতে এসেছিলেন। সন্দেহ হলে পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তারা তাকে আটক করে কুমিল্লা ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

এ ঘটনায় ওইদিন কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি মামলা করে গোয়েন্দা পুলিশ। মামলার তদন্তে ইউপি সচিব ইসমাইল হোসেনসহ বেশ কয়েকজনের সম্পৃক্ত থাকার তথ্য পাওয়া যায়। বৃহস্পতিবার (২০ জুন) সন্ধ্যায় সচিব ইসমাইল হোসেনকে মুরাদনগর-কোম্পানীগঞ্জ সড়কের নিমাইকান্দি এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

এ বিষয়ে মুরাদনগর সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী তুফরীজ এটন বলেন, ‘আমি সচিবকে সর্বোচ্চ সুবিধা দিয়েছি। তারপর তাকে কেন এসব করতে হবে? যারা টাকার বিনিময়ে এসব করেছে তারা শাস্তি পাবে।’

কুমিল্লা জেলা ডিবির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজেশ বড়ুয়া বলেন, রোহিঙ্গা তরুণকে সনদ দেওয়ায় সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে সচিব ইসমাইলকে গ্রেফতার করা হয়। শুক্রবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Join Manab Kallyan